1. admin@nagorikexpress.com : নাগরিক এক্সপ্রেস : Nagorik Express প্রশাসন
শুক্রবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২১, ১২:৪৪ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
চলে গেলেন জাতীয় অধ্যাপক ও মতলবের কৃতি সন্তান ড. রফিকুল ইসলাম ঢাকা মহানগর উত্তর ছাত্রলীগের সভাপতিকে অব্যাহতি মতলব উত্তর ও দক্ষিণে ইউপি নির্বাচনে ১১ নৌকা প্রার্থীর জয় বাসে হাফ ভাড়া শুধুমাত্র ঢাকার মধ্যে : শিক্ষার্থীদের যেসব শর্ত মানতে হবে ইউপি নির্বাচন: ভাঙ্গায় ১২ জয়ীর ১১ জনই নিক্সন চৌধুরীর অনুসারী। গফরগাঁওয়ে দুই ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশী দুই প্রার্থীর মধ্যে মত বিনিময়। “মনোহরদীতে হাফ পাশের দাবীতে শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন” লৌহজংয়ে সীমানা বিরোধকে কেন্দ্র করে প্রাণনাশের হুমকি ডামুড্যায় উপজেলায় ২৯৭ টি মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষণা ইউপি নির্বাচনে সদস্য প্রার্থী আরিফ ছৈয়াল জনগণের কল্লাণে কাজ করতে চান 

টস জিতে ব্যাটিংয়ে নেমেছে পুলিশ,নিরাপত্তার স্বার্থে বাসায় থাকুন।

  • আপডেট সময় : শুক্রবার, ২৭ মার্চ, ২০২০
  • ২৫০ সময় দেখা

টস জিতে ব্যাটিংয়ে নেমেছে পুলিশ,নিরাপত্তার স্বার্থে বাসায় থাকুন।

এমন প্রচারনায় সোস্যাল মিডিয়া অফলাইন অনলাইন সবখানে সয়লাব। করোনার আতংকে মানুষকে ঘরে রাখতে গত ২ দিন ধরে বেধড়ক পেটাচ্ছে পুলিশ। যাকে তাকে যেখানে সেখানে পেলেই পেটাচ্ছে। রিকশায়ালা, নিম্ন আয়ের খেটে খাওয়া মানুষ,অসুস্থ রোগী ও মার খেয়েছেন। তাদের অপরাধ ঘরের বাহিরে থাকা। পুলিশের এই বর্বরোচিত আচরণকে অনেকেই উৎসাহ দিচ্ছেন। বুধবার রাজধানীর বিভিন্ন জায়গায় বিশ্বরোডে চলন্ত মোটরসাইকেলে চালক , যাত্রীদের উপর অতর্কিত হামলা চালিয়েছে পুলিশ। দেশের বিভিন্ন স্থানেও পুলিশের মারমুখী হামলার ঘটনা ঘটেছে। পুলিশ যেনো ভুলে গেছে,তারা জনগনের সেবক, রাষ্ট্রের বেতনভুক্ত কর্মচারী।

রাজবাড়ির পাংশা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ডিউটি থেকে বাসায় ফেরার পথে এক সরকারী ডাক্তারকে পিটিয়েছে পুলিশ। পেশাগত কাজ সেরে হাসপাতাল থেকে ফিরছিলেন বলার পরেও ওই ডাক্তারকে পিটিয়েছেন,পাংশা মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ আহসান উল্লাহ নিজেই। করোনা মোকাবেলায় ঘরে থাকার পরামর্শ দিয়েছে সরকার। প্রয়োজনীয় কাজ ছাড়া বাহিরে যেতে নিষেধ করা হয়েছে। কিন্তু রাস্তাঘাটে যাকে পাচ্ছে, তাকেই কেনো পেটাচ্ছে পুলিশ? জনগনকে রাস্তায় পেলে এভাবে পেটানোর ক্ষমতা পুলিশকে দেয়া হয়নি। সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখতে জেল জরিমানা দেন। তারপরও পুলিশ দিয়ে জনগন পেটানো সম্পূর্ন অবৈধ। ব্যাপারটি নিয়ে সোস্যাল মিডিয়ায় মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা গেছে।

পুলিশ দিয়ে জনগন পিটিয়ে ঘরে রাখার সমালোচনা করে জাহিদ সবুজ নামে এক ফেসবুক ব্যবহারকারী যা লিখেছেন তা হুবহু তুলে ধরা হলো… জনগনকে পিটাইতে পুলিশকে উৎসাহিত করবেন না। এটা বর্বরতা। করোনা মোকাবেলায় পর্যাপ্ত চিকিৎসা সরঞ্জাম নাই। এখনো জেলা শহার তো দূরের কথা বিভাগীয় শহরগুলোতে পর্যন্ত করোনা টেস্টের ব্যবস্থা হয় নাই। কিন্তু দেশের বিভিন্ন জায়গায় পুলিশ দিয়া জনগণকে হেনস্তা শুরু হয়ে গেছে। এটারে বলে ‘ভাত দেওয়ার মুরোদ নাই, কিল মারার গোসাই’। কেউ অকারণে বাইরে বের হইলে তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নিতে পুলিশকে উৎসাহিত করুন। কারণে বের হইলে যাতে নিরাপদ দূরত্ব মেনটেইন করে সেজন্য জনগণকে সচেতন করতে পুলিশকে উৎসাহিত করুন। কারণ-অকারণ নির্ধারনে আত্মপক্ষ সমর্থনের সুযোগ দিতে হবে। ‘মাইরের উপর ঔষধ নাই, পুলিশের উপর ডাক্তার নাই ‘ এসব মূর্খ চিন্তা ভাবনা ছাড়ুন। যেসব দেশে পুলিশ যত্রতত্র যেমন খুশি জনগণকে পেটায় সেসব দেশের স্বাস্থ্যসেবার চাইতে যেসব দেশের পুলিশ এমন আচরণ করে না সেসব দেশের স্বাস্থ্যসেবার মান ভাল। বিশ্বাস না হইলে গুগোল করেন, ইতিহাস পড়েন। মোবাইল রিচার্জের দোকান খোলা রাখতে হবে। এই দুর্দিনে আত্মীয়-স্বজনদের খোঁজখবর নিতে হবে মানুষের। কিছু সংখ্যক রিকশা চালক অবশ্যই বাইরে থাকতে হবে। এরা করোনা আক্রান্ত রোগীকেও রিকশায় তুলতে ভয় পায়না। এই দেশের কোটি কোট মানুষ দিনে আনে দিনে খায়, তাদের খাওয়ানোর দায়িত্ব কেউ নেয় নাই। ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদেরও দুই মাস বইসা খাওয়ার সঙ্গতি নাই। তাদেরকে দোকান খোলা রাখার একটা গাইড লাইন দিতে হবে। আশা করি পুলিশ এইসব বিষয়ে ভূমিকা রাখবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ধরনের আরো সংবাদ
© নাগরিক এক্সপ্রেস । সর্বসত্ব সংরক্ষিত। নাগরিক এক্সপ্রেস এর প্রকাশিত প্রচলিত কোনো সংবাদ তথ্য ছবি আলোকচিত্র রেখা চিত্র ভিডিও চিত্র অডিও কনটেস্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামত এর জন্য কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ণ লেখক এর
Theme Customized By Theme Park BD
error: Content is protected !!