1. admin@nagorikexpress.com : নাগরিক এক্সপ্রেস : Nagorik Express প্রশাসন
  2. rd278591@gmail.com : Rahul Rahulrd : Rahul Rahulrd
মঙ্গলবার, ১৮ জানুয়ারী ২০২২, ০১:৩৮ অপরাহ্ন
নোটিশ :
নাগরিক এক্সপ্রেস পত্রিকার সাংবাদিক হিসাবে কাজ করতে হলে আজই আমাদের অনলাইন পেইজে অথবা ই-মেইল নাম্বারে অথবা আমাদের মোবাইল নাম্বারে যোগাযোগ করুন প্রতিটি জেলার শহরে সাংবাদিক নিয়োগ দেওয়া হচ্ছে।   নাগরিক এক্সপ্রেস এর বিভিন্ন জেলার সাংবাদিকদের নাম এবং পদবী। নাম: তানজির আহম্মেদ সানি রিপোর্টার: ঢাকা জেলা নাম: নোমান খান রিপোর্টার: মোহাম্মদপুর ঢাকা। নাম: ইসমাইল হোসেন রিপোর্টার:রাজশাহী জেলা নাম : মেজবাহ উদ্দিন রিফাত রিপোর্টার : মোহাম্মদপুর ঢাকা মোঃ জাহাঙ্গীর রাজীব রাজু রিপোর্টার - ভেড়ামারা, কুষ্টিয়া। নাম: প্রান্ত মৃধা রিপোর্টার: নরসিংদী নামঃসাকিব হাসান প্রিয়াস প্রতিনিধিঃ কৃষি ইনস্টিটিউট, ব্রাহ্মণবাড়িয়া মকবুল হোসেন প্রতিনিধিঃ মিঠামইন,কিশোরগঞ্জ নাম : খালিদ সাইফুল চঞ্চল রিপোর্টার : কুষ্টিয়া জেলা নাম: এইচ এম জুয়েল রিপোর্টার: মাগুরা সদর মাগুরা জেলা নাম: আজাদ নাদভী রিপোর্টার: মুন্সিগঞ্জ জেলা নাম: ইসমাইল হোসেন রিপোর্টার:রাজশাহী জেলা নাম:মোঃইনজামামুল হক জুয়েল রিপোর্টার:সাতক্ষীরা জেলা নামঃ ফৌজি হাসান খান রিকু রিপোর্টারঃ লৌহজং উপজেলা নামঃ মুশফাকুর রহমান সিলেট জেলা প্রতিনিধি নামঃইমতিয়াজ উদ্দিন কক্সবাজার জেলা প্রতিনিধি    
শিরোনাম :

! যাকাতের বিধান !
!! ও সমকালিন মাসআলা !!

  • আপডেট সময় : মঙ্গলবার, ৫ মে, ২০২০
  • ১৮৩ সময় দেখা


।।আবুল হাসান হাশেম।।
ইসলামের পাঁচটি স্তম্বের মধ্যে অন্যতম হচ্ছে যাকাত। শরীয়তের দৃষ্টিতে যাকাতের অনেক গুরুত্ব ও ফযীলত রয়েছে এবং যাকাত আদায় না করলে রয়েছে অত্যন্ত ভয়াবহ শাস্তির সতর্কবাণী ।
নবী করীম সা. এর ইন্তেকালের পর একগোত্র যাকাত আদায়ে অস্বীর করলে, হযরত আবু বকর সিদ্দীক রা. তাদের বিরুদ্ধে যুদ্ধের ঘোষণা দেন এবং যুদ্ধ করেন ।

যাকাতের ফযীলতঃ

হযরত আনাস রা. থেকে বর্ণিত, রাসূলুল্লাহ সা. ইরশাদ করেন- নিঃসন্দেহে দান-সদকা (যাকাত) আল্লাহ তাআলার ক্ষোভের আগুন নিভিয়ে দেয় এবং অপমৃত্যু থেকে রক্ষা করে । —সুনানে তিরমিযী: ১/১৪৪

যাকাত আদায় না করার শাস্তিঃ

মহান আল্লাহ তা’আলা ইরশাদ করেন- যারা স্বর্ণ ও রোপ্য জমা করে রাখে এবং তা আল্লাহর পথে ব্যয় করে না, তাদের আপনি যন্ত্রনাদায়ক শাস্তির সুসংবাদ দিন । যেদিন সেগুলো উত্তপ্ত করে তা দ্বারা তাদের মুখমন্ডল, পার্শ্ব ও পিঠে দাগ দেয়া হবে (এবং বলা হবে) এগুলো তোমাদের সে সম্পদ, যা তোমরা নিজেদের জন্য কুক্ষিগত করে রেখেছিলে । এখন তোমরা নিজেদের অর্জিত সম্পদের স্বাদ আস্বাদন করো । —সূরা তাওবা : ৩৪-৩৫
নবী করীম সা. এরশাদ করেন, আল্লাহ তা’আলা যাকে ধন সম্পদ দিয়েছেন সে যদি তার সম্পদের যাকাত আদায় না করে তাহলে তার সম্পদকে কিয়ামতের দিন টাক পড়া বিষধর সাপে রূপ দেয়া হবে, যার চোখের ওপর দুটি কালো দাগ থাকবে । কিয়ামতের দিন সেটা তার গলায় পেঁচিয়ে দেয়া হবে । এরপর সাপ তার মুখে দংশন করতে থাকবে এবং বলবে, আমি তোমার সম্পদ, আমি তোমার সঞ্চয় । —সহীহ বুখারী : ১/১৮৮

যাকাত কার ওপর ফরযঃ

প্রাপ্ত বয়স্ক (নাবালেগ নয়) সুস্থমস্তিস্ক সম্পন্ন (পাগল নয় ) প্রত্যেক মুসলিম নর-নারী যার মালিকানা সত্ত্বে ঋণ ব্যতীত নিত্যপ্রয়োজনের অতিরিক্ত সম্পদ থাকবে এবং সে সম্পদের উপর এক চন্দ্রবছর অতিবাহিত হবে, তার উপর সম্পদের ৪০ ভাগের এক ভাগ যাকাত আদায় করা ফরয হবে । —আল হিদায়া : ১/১৮৫-১৯৫

যে পরিমাণ সম্পদ থাকলে যাকাত দিতে হবেঃ

ক. সারে বায়ান্ন ভরি রৌপ্য, তা অলংকার হোক বা অন্য কোন আকৃতিতে হোক বা তার সমপরিমান মূল্য (নগদ ক্যাশ) ৷
খ. কিছু স্বর্ণ ও তার সাথে কিছু নগদ টাকা বা কিছু রূপা, যেগুলোর মোট মূল্য, বর্তমান বাজার মূল্য হিসেবে সারে বায়ান্ন ভরি রূপার মূল্যের সমপরিমাণ হয় ।
গ. সারে বায়ান্ন ভরি রূপার মূল্য পরিমাণ ব্যবসায়িক সম্পদ।
ঘ. সারে সাত ভরি স্বর্ণ (অলংকার বা অন্য কিছু) যখন কারো কাছে শুধু স্বর্ণ থাকবে সাথে কোন টাকা বা রূপা না থাকবে, তখন সারে সাত ভরি স্বর্ণ থাকলে তার ওপর যাকাত আবশ্যক হবে । কিন্তু যদি কারো, স্বর্ণের সাথে টাকা বা রূপা থাকে, তাহলে স্বর্ণ ও রূপা বা টাকা সবগুলোর মূল্য কত হয় তা দেখতে হবে । যদি মূল্য সারে বায়ান্ন ভরি রূপার মূল্য পরিমাণ হয় তাহলেই যাকাত দিতে হবে ।—ফাতাওয়ায়ে মাহমুদিয়া : ১৪/৩৮

টিভি চ্যানেলে যাকাত :

কেউ কেউ ধর্মভিত্তিক টিভি চ্যানেল প্রতিষ্ঠা বা পরিচালনার জন্যও যাকাত চেয়ে থাকে, অনেক লোক আবার তাদের ডাকে সাড়া দিয়ে তাদেরকে যাকাতের অর্থ প্রদানও করে থাকে। মনে রাখতে হবে এটি যাকাতের কোনো খাত নয়। ইসলামের পাঁচ স্তম্ভের অন্যতম যাকাত। তা আদায় করা যেমন ফরয তেমনি যথাস্থানে উপযুক্ত পাত্রে দেওয়াও ফরয। কেউ কোনো আহবান করলেই তাতে সাড়া দেওয়ার আগে বিজ্ঞ আলেমদের থেকে মাসআলা জেনে নেওয়া খুবই জরুরি। বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি যাকাত বোর্ড, দাতব্য সংস্থা ইত্যাদির ক্ষেত্রেও একই কথা প্রযোজ্য।

যাকাত আদায়ের ভুল পদ্ধতিঃ

যাকাত আদায়ের ক্ষেত্রে অনেক বিত্তবানদেরকে দেখা যায়, রমযান মাস এলে যাকাতের কিছু কাপড় ক্রয় করে বিলি করে দেয় ৷ অনেকে আনুষ্ঠানিকতার সাথে এলান করে যাকাতের কাপড় বিলি করে ৷ এক্ষেত্রে যাকাতদাতার স্বর্ণ-রূপা, টাকা-পয়সা ও ব্যবসায়িক পণ্য ইত্যাদি সম্পত্তির কোনো হিসাব-নিকাশ করা হয় না ৷ অনুমান করে কিছু টাকা অথবা কাপড় বিলি করে দেয় ৷ এটা সম্পূর্ণ ভুল পদ্ধতি ৷ এভাবে অনুমান করে যাকাত দিলে যাকাত আদায় হবে না; বরং যে যে মাল-সম্পদে যাকাত ফরয হবে, সবগুলো পাই টু পাই হিসাব করে যাকাত দিতে হবে ৷
—প্রচলিত ভিত্তিহীন কাহিনী: ২২-২৪

ঋণগ্রস্থের যাকাতঃ

সম্পদের মালিক যদি ঋণগ্রস্থ হয় তাহলে তার সম্পদের মূল্য থেকে প্রথমে ঋণ পরিমাণ টাকা বাদ দিতে হবে । অতঃপর যদি অবশিষ্ট সম্পদ সারে বায়ান্ন ভরি রূপার মূল্য বা তার চেয়ে বেশী হয়, তাহলে তার ওপর যাকাত আবশ্যক হবে, নতুবা হবে না । কেউ যদি কিস্তিতে কিছু ক্রয় করে থাকে, বা কিস্তি করা ঋণ থাকে , তাহলে এই বৎসর যে পরিমাণ কিস্তি আদায় করতে হবে কেবল মাত্র সেই পরিমাণ টাকা বাদ দিয়ে অবশিষ্ট সম্পদের যাকাত দিতে হবে ।
—আদ্দুররুল মুখতার :২/২৬৩

পাওনা টাকার ওপর যাকাতঃ

যদি কারো কাছে টাকা ঋণ দেয়া থাকে বা কারো কাছে গচ্ছিত রাখা থাকে অথবা কোন কিছু বিক্রয় করেছে কিন্তু তার মূল্য এখনো হস্তগত হয়নি এবং উক্ত টাকা ফেরত পাওয়ার আশা থাকে । তাহলে তা হিসাব করে যাকাত আদায় করতে হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ধরনের আরো সংবাদ
© নাগরিক এক্সপ্রেস । সর্বসত্ব সংরক্ষিত। নাগরিক এক্সপ্রেস এর প্রকাশিত প্রচলিত কোনো সংবাদ তথ্য ছবি আলোকচিত্র রেখা চিত্র ভিডিও চিত্র অডিও কনটেস্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামত এর জন্য কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ণ লেখক এর
Theme Customized By Theme Park BD
error: Content is protected !!