1. admin@nagorikexpress.com : admin :
সোমবার, ০৪ মার্চ ২০২৪, ০৯:২৩ অপরাহ্ন
নোটিশ :
পরিচালনা পরিষদ: নাগরিক এক্সপ্রেস এর আইডি কার্ড এর মেয়াদ সম্পূর্ণ কোন সাংবাদিক নেই . সকলের আইডি কার্ডের মেয়াদ শেষ। দ্রুত আইডি কার্ড সংগ্রহ করুন জনপ্রিয় পত্রিকা নাগরিক এক্সপ্রেস এর পক্ষ থেকে সবাইকে পরিচালনা পরিষদের পক্ষ থেকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন । বর্তমানে সারা বাংলাদেশে আইডি কার্ড ধারি আমাদের কোন সংবাদ কর্মী নেই যারা আছেন তাদের আইডি কার্ডের মেয়াদ শেষ হয়ে গেছে তাই উক্ত সাংবাদিকগণ আমাদের প্রতিষ্ঠানে কর্মরত আছেন বলে বিবেচিত হবে না। যদি কারো আইডি কার্ডের প্রয়োজন হয় তাহলে খুব শীঘ্রই আমাদের সাথে যোগাযোগ করবেন। আপনি কি সাংবাদিক হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করতে চান? আপনি কি সমাজের সমস্ত অন্যায় অপরাধ দুর্নীতির বিরুদ্ধে লিখতে চান? তাহলে আজই আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন. নিরপেক্ষ সংবাদ এর সন্ধানে। আপনার এলাকায় ঘটে যাওয়া যেকোনো অনিয়ম দুর্নীতি আমাদের কাছে ইমেইলের মাধ্যমে পাঠাতে পারেন অথবা নিচে দেওয়া আমাদের নাম্বারে যোগাযোগ করতে পারেন সারাদেশে সাংবাদিক নিয়োগ চলছে সাংবাদিক হিসেবে নিজেকে গড়ে তুলতে আজি আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন.
শিরোনাম :
বিয়ে বাড়িতে মদ্যপান, অসুস্থ হয়ে মামা-ভাগনের মৃত্যু গাজীপুরে পুলিশের ওপর ডাকাত দলের হামলা ভাঙ্গায় এনজিওর কিস্তি টাকা উত্তোলনকে কেন্দ্র করে ৬ পুলিশ সহ এনজিও কর্মীদের ওপর হামলা, আহত-১২ নকশি কাঁথা ও তারুন্য পরিবার মাদারীপুরের আয়োজনে বিশিষ্ট সমাজসেবক ও দানশীল ব্যক্তিত্ব চাঁদপুরে মোবাইল চুরির মামলায় ‘ভুয়া এসপি’ কারাগারে টেকনাফের শাহপরীর দ্বীপে ৭০ হাজর পিস ইয়াবা জব্দ করেছে কোস্ট গার্ড ফেনী ভিক্টোরিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ে অভিভাবক সমাবেশ অনুষ্ঠিত মতলবে অটোবাইকের ধাক্কায় শিশু নিহত আহতদের চিকিৎসাভার ও নিহতদের ২৫ হাজার করে টাকা দেবে সরকার আমরা যেন ঘুড়ির মত স্বপ্নগুলো লালন করতে পরি,আর বই আমাদের পরিবর্তন করে

নাগরপুরে গরমে অতিষ্ঠ জনজীবন

  • আপডেট সময় : শনিবার, ১৬ জুলাই, ২০২২
  • ১৩৪ বার পঠিত

সোলায়মান,টাংগাইল প্রতিনিধি

সারাদেশব্যপী প্রখর রোদ ও তীব্র গরমে অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে। পাশাপাশি টাঙ্গাইলের নাগরপুর উপজেলার জনজীবন তীব্র গরমে অতিষ্ঠ। রোদে পুড়ছে প্রকৃতি, বইছে তাপ প্রবাহ, স্বস্তি নেই কোথাও। জনজীবনে কাহিল অবস্থা। দুপুরের রোদে খোলা আকাশের নিচে হাঁটলে গরম বাতাসের হলকায় মুখমন্ডল পুড়ে যাওয়ার উপক্রম। সূর্য এতটাই প্রখর যে, বাইরে বের হলেই মনে হচ্ছে অগ্নিকুন্ড। একটু প্রশান্তি ও শরীরকে সতেজ রাখার জন্য মানুষ ছুটছেন গাছের ছায়া, কিংবা পুকুর পাড়। এছাড়াও গরমের তীব্রতা সহ্য করতে না পেরে শিশুরা পুকুর কিংবা নদীর পানিতে পার করছে সময়। শুধু দিনের বেলাতেই নয়, রাতেও গরমে মানুষ ঘুমাতে পারছে না কারন প্রচুর লোডশেডিং আর বৈদ্যুতিক পাখাও হার মানছে এই তীব্র গরমের কাছে।

শনিবার (১৬ জুলাই), নাগরপুরের বিভিন্ন এলাকায় এমন চিত্র দেখা যায়। ভ্যাপসা গরমে অল্পতেই ক্লান্ত হয়ে পড়ছে কর্মজীবী ও বিভিন্ন পেশাজীবি মানুষ। এতে ব্যাহত হচ্ছে স্বাভাবিক জীবনযাত্রা আর এই তীব্র রোদে মানুষের মুখে দেখাচ্ছে মলিনতার ছাপ।

গাছের ছায়া আর পুকুর পাড়ে বসে থাকা কয়েকজন দিনমজুর বলেন, ‘অতিরিক্ত গরমে কাজে মন বসছে না আর
দুপুরের কড়া রোদ আর সহ্য হচ্ছে না, তাই কাজের ফাঁকে গাছের নিচে আশ্রয় নিচ্ছি।

কৃষক আব্দুল রহিম বলেন, তীব্র গরমের মাঝে ফসল কাটতে যেয়ে অবস্থা একেবারে নাজেহাল। বার বার ঠান্ডা পানি আর লেবুর শরবত পান করলেও স্বস্তি মিলছে না।

এই অতিরিক্ত গরমে নাগরপুরের জনজীবন যেন গৃহবন্দী হয়ে পড়েছে ফলে দেখা দিচ্ছে জ্বর, সর্দি, কাশির প্রাদুর্ভাব। এ বিষয়ে ডা.এম এ মান্নান জানান, বিগত কয়েকদিনে গরমের কারণে বেশি অসুস্থ হচ্ছে শিশু ও বয়স্করা।

এদিকে তাপদাহ বেড়ে যাওয়ায় চাহিদা বেড়েছে ঠান্ডা পানীয়’র। ফুটপাতে প্রচুর পরিমানে বিক্রি হচ্ছে আখেঁর রস ও বিভিন্ন ফলমূলের সাথে লেবুর শরবত।

সদর বাজারের রিক্সা চালক বলেন, কয়েকদিন যাবত প্রচন্ড গরম ও তাপমাত্রা বেশী হওয়ায় কাজে বের হয়েও যাত্রী কম পাই, ফলে আমাদের ইনকাম কম হচ্ছে।

আবহাওয়া অফিস সূত্রে জানা যায়, ঢাকা-টাংগাইলসহ রাজশাহী, সিলেট বিভাগের উপর দিয়ে মৃদু থেকে মাঝারি ধরনের তাপ প্রবাহ বয়ে যাচ্ছে, যা আগামী কয়েকদিন এ তাপপ্রবাহ অব্যাহত থাকতে পারে। এছাড়াও বায়ু মন্ডলে জলীয় বাষ্প বেশি ও বৃষ্টিপাত কম হওয়ায় গরম এতো বেশি অনুভূত হচ্ছে বলে জানিয়েছেন আবহাওয়াবীদরা।

প্রখর গরম ও স্বাস্থ্য বিষযে মুক্তাদির হোমিও চিকিৎসা কেন্দ্রের ম্যানেজিং ডিরেক্টর ড.এম এ মান্নান ও প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা জানান, গরমে শরীর ঠান্ডা রাখার জন্য পুষ্টিকর ও স্বাস্থ্যসম্মত খাবারের প্রতি অধিক মনোযোগী হতে হবে কারণ কিছু খাবার আছে যা আমাদের শরীর ভেতর থেকে ঠান্ডা রাখতে সাহায্য করে। বেশী গরমে শরীর থেকে প্রয়োজনীয় পানি ও লবণের অনেকটাই বের হয়ে যায়। অনেক সময় দেখা দেয় পানি শূন্যতা। এছাড়াও গরমে ডায়েরিয়া, হিটস্ট্রোক ইত্যাদি রোগ সমুহ হতে পারে। এসময় অতিরিক্ত মশলাদার খাবার, তৈলাক্ত খাবার পরিহার করে পুদিনা পাতা, তরমুজ, শসা, দই, পানি, শকাসবজি এ সমস্ত খাবার বেশী বেশী খেতে হবে।এছাড়াও করোনা প্রভাব আবার দেখা যাচ্ছে এজন্য সকলকেই স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলার পরামর্শ দেন এই চিকিৎসক।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© নাগরিক এক্সপ্রেস । সর্বসত্ব সংরক্ষিত। নাগরিক এক্সপ্রেস এর প্রকাশিত প্রচলিত কোনো সংবাদ তথ্য ছবি আলোকচিত্র রেখা চিত্র ভিডিও চিত্র অডিও কনটেস্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামত এর জন্য কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ণ লেখক এর
Theme Customized By Shakil IT Park