1. admin@nagorikexpress.com : admin :
সোমবার, ০৪ মার্চ ২০২৪, ০৯:৪০ অপরাহ্ন
নোটিশ :
পরিচালনা পরিষদ: নাগরিক এক্সপ্রেস এর আইডি কার্ড এর মেয়াদ সম্পূর্ণ কোন সাংবাদিক নেই . সকলের আইডি কার্ডের মেয়াদ শেষ। দ্রুত আইডি কার্ড সংগ্রহ করুন জনপ্রিয় পত্রিকা নাগরিক এক্সপ্রেস এর পক্ষ থেকে সবাইকে পরিচালনা পরিষদের পক্ষ থেকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন । বর্তমানে সারা বাংলাদেশে আইডি কার্ড ধারি আমাদের কোন সংবাদ কর্মী নেই যারা আছেন তাদের আইডি কার্ডের মেয়াদ শেষ হয়ে গেছে তাই উক্ত সাংবাদিকগণ আমাদের প্রতিষ্ঠানে কর্মরত আছেন বলে বিবেচিত হবে না। যদি কারো আইডি কার্ডের প্রয়োজন হয় তাহলে খুব শীঘ্রই আমাদের সাথে যোগাযোগ করবেন। আপনি কি সাংবাদিক হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করতে চান? আপনি কি সমাজের সমস্ত অন্যায় অপরাধ দুর্নীতির বিরুদ্ধে লিখতে চান? তাহলে আজই আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন. নিরপেক্ষ সংবাদ এর সন্ধানে। আপনার এলাকায় ঘটে যাওয়া যেকোনো অনিয়ম দুর্নীতি আমাদের কাছে ইমেইলের মাধ্যমে পাঠাতে পারেন অথবা নিচে দেওয়া আমাদের নাম্বারে যোগাযোগ করতে পারেন সারাদেশে সাংবাদিক নিয়োগ চলছে সাংবাদিক হিসেবে নিজেকে গড়ে তুলতে আজি আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন.
শিরোনাম :
বিয়ে বাড়িতে মদ্যপান, অসুস্থ হয়ে মামা-ভাগনের মৃত্যু গাজীপুরে পুলিশের ওপর ডাকাত দলের হামলা ভাঙ্গায় এনজিওর কিস্তি টাকা উত্তোলনকে কেন্দ্র করে ৬ পুলিশ সহ এনজিও কর্মীদের ওপর হামলা, আহত-১২ নকশি কাঁথা ও তারুন্য পরিবার মাদারীপুরের আয়োজনে বিশিষ্ট সমাজসেবক ও দানশীল ব্যক্তিত্ব চাঁদপুরে মোবাইল চুরির মামলায় ‘ভুয়া এসপি’ কারাগারে টেকনাফের শাহপরীর দ্বীপে ৭০ হাজর পিস ইয়াবা জব্দ করেছে কোস্ট গার্ড ফেনী ভিক্টোরিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ে অভিভাবক সমাবেশ অনুষ্ঠিত মতলবে অটোবাইকের ধাক্কায় শিশু নিহত আহতদের চিকিৎসাভার ও নিহতদের ২৫ হাজার করে টাকা দেবে সরকার আমরা যেন ঘুড়ির মত স্বপ্নগুলো লালন করতে পরি,আর বই আমাদের পরিবর্তন করে

উপাদীতে সম্পত্তিগত বিরোধে, দোকানপাট ও বসতঘরে হামলা, আহত-৪, থানায় অভিযোগ

  • আপডেট সময় : মঙ্গলবার, ১ নভেম্বর, ২০২২
  • ১০০ বার পঠিত

মোঃসিয়াম:
মতলব দক্ষিণ উপাদীতে জমিজমা নিয়ে বিরোধের জেরে প্রতিপক্ষ ও ভাড়াটে সন্ত্রাসীর হামলায় নারীসহ ৪ জন আহত হয়েছে।

মঙ্গলবার (১নভেম্বর) ভোর ৬ ঘটিকার দিকে উপাদী দক্ষিণ ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের করবন্দ গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ হামলায় আহতরা হলেন- জাহানারা (৬৫) দিদার (৩২) আরশাদ উল্লাহ মিজি (৭৫), মাইনুউদ্দিন (৪২)।

এ ঘটনায় আহত জাহানারা ও দিদারকে গুরুত্ব অবস্থায় চাঁদপুর ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। আহত আরশাদ উল্লাহ মিজি ও মাইনুউদ্দিন কে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়। এই বিষয়ে আরশাদ উল্লাহ মিজি বাদী হয়ে ৮ জনকে আসামী ও ২০/২৫ জনকে অজ্ঞাত আসামি করে মতলব দক্ষিণ থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেন। আসামিরা হলেন মোঃ হেলাল তফাদার (৬০), কামরুল ইসলাম (২৩), মোঃ হাছান মাল (৫০), জসিম মাল(৪০), শাহাদাত মাল (৩০), জুলহাস মাল (৪০), মানিক মুন্সী (৫০), লিয়াকত ও তফাদার (৬০)।

থানায় লিখিত অভিযোগ সুত্রে জানাযায় বিবাদীগনের সাথে দীর্ঘদিন যাবৎ জায়গাজমি নিয়া বিরোধ চলেছিল। এই বিরোধকে কেন্দ্র করে মোঃ হেলাল তফাদার এর নেতৃত্বে বিবাদীরা জনবলে বলীয়ান হয়ে আরশাদ উল্লাহ কে প্রতিনিয়ত হুমকি ধমকি দিয়া আসতেছিল। সেই ধারাবাহিকতায় পরিকল্পিত ভাবে মোঃ হেলাল তফাদার , কামরুল ইসলাম , মোঃ হাছান মাল, জসিম মাল, শাহাদাত মাল , জুলহাস মাল, মানিক মুন্সী , লিয়াকত, তফাদার ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসী সহ
২০/২৫ জন বেআইনী জনতাবদ্ধে মিলিত হইয়া আরশাদ উল্লাহ’র মালিকানাধীন বিল্ডিং দোকানে অনধিকার প্রবেশপূর্বক ব্যাপক ভাংচুর চালায়। তাদের হাতে থাকা শাবল, হেমার, কুড়াল ইত্যাদি সরঞ্জামাদি নিয়া এলোপাতাড়ি পিটিয়ে দোকানের ইটের দেয়াল, শার্টার ভাংচুর করে আনুমানিক ৮,০০,০০০/- (আট লক্ষ) টাকার ক্ষতিসাধন করে।

আরশাদ ও তার পরিবারের লোকজন বাধা প্রদান করতে গেলে সকল সন্ত্রাসীরা এলোপাতাড়ি কিল ঘুষি লাথি মেরে জাহানারা, দিদার, আরশাদ উল্লাহ মিজি ও মাইনুউদ্দিন কে শরীরের বিভিন্ন অংশে নীলা ফুলা জখম করে।

এই সময় সন্ত্রাসীরা জাহানারা বেগম এর গলায় থাকা ০২ ভরি ওজনের স্বর্ণের চেইন, দোকানের ০৪টি শার্টার খুলিয়া নিয়া যায়। আহতদের ডাক চিৎকারে এলাকার লোকজন জড়ো হলে হেলাল প্রকাশ্যে হুমকি করে এই বিষয়ে বেশী বাড়াবাড়ি কিংবা মামলা মোকদ্দমা করলে আরশাদ উল্লাহ ও তার পরিবারের সদস্যদের পুনরায় মারধর করবে বড় ধরনের ক্ষতিসাধন করবে ও হত্যা করে লাশ গুম করে ফেলবে।

এলাকা সুত্রে জানা যায় আরশাদ উল্লাহ ছেলে প্রবাসী মোস্তফা তাদের পাশের বাড়ির সৈয়দ আহমেদ ও তার ছোট ভাই নুরু আহমেদ তফাদার এর নিকট থেকে ২৮/০৯/২০২০ তারিখে ১০ শতক জমি ক্রয় করে। এই নিয়ে নিয়ে সৈয়দ আহমেদ ও নুরু আহমেদ এর মেজু ভাই হেলাল তফাদার জায়গা পাবে বলে বিভিন্ন সময় ছলচাতুরি করার চেষ্টা করে। হেলাল তফাদারের নেতৃত্বে সন্ত্রাসীরা এসে আরশাদ উল্লাহ ছেলের ক্রয়কৃত সম্পত্তির উপর নির্মান করা দোকান ও ঘরে উপর তান্ডব চায়। কয়েক জনকে তারা আহত করে। পরে ৯৯৯ কল দিলে মতলব দক্ষিণ থানার সহকারী উপপরিদর্শক নাসিম ও সঙ্গীয় ফোর্স এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে হেলাল ও তার সন্ত্রাসী বাহীনিরা পালিয়ে গেলে তাদের কারো বক্তব্য নেওয়া যায়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© নাগরিক এক্সপ্রেস । সর্বসত্ব সংরক্ষিত। নাগরিক এক্সপ্রেস এর প্রকাশিত প্রচলিত কোনো সংবাদ তথ্য ছবি আলোকচিত্র রেখা চিত্র ভিডিও চিত্র অডিও কনটেস্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামত এর জন্য কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ণ লেখক এর
Theme Customized By Shakil IT Park