1. admin@nagorikexpress.com : admin :
মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর ২০২২, ১১:৫৫ অপরাহ্ন
নোটিশ :
আপনি কি সাংবাদিক হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করতে চান? আপনি কি সমাজের সমস্ত অন্যায় অপরাধ দুর্নীতির বিরুদ্ধে লিখতে চান? তাহলে আজই আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন. নিরপেক্ষ সংবাদ এর সন্ধানে। আপনার এলাকায় ঘটে যাওয়া যেকোনো অনিয়ম দুর্নীতি আমাদের কাছে ইমেইলের মাধ্যমে পাঠাতে পারেন অথবা নিচে দেওয়া আমাদের নাম্বারে যোগাযোগ করতে পারেন সারাদেশে সাংবাদিক নিয়োগ চলছে সাংবাদিক হিসেবে নিজেকে গড়ে তুলতে আজি আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন.
শিরোনাম :
মতলব-গজারিয়া সেতু নির্মাণে দেশের দক্ষিনাঞ্চলের অর্থনীতীতে শিল্প বিপ্লব ঘটবে চাঁদপুরে ফুটবল বিতর্কে বন্ধুর ছুরিকাঘাতে বন্ধু খুন দেশান্তর.কম এর সম্পাদকের নানির ৪র্থ মৃত্যু বার্ষিকী আজ অযোগ্য প্রার্থীকে মনোনয়নের অভিযোগ,ইউনিয়ন জুড়ে বিক্ষোভ আশুলিয়ায় ৮ দিন ধরে মাদ্রাসার ছাত্র নিখোজ সুনামগঞ্জে নারীদের উন্নয়নে সেলাই মেশিন ও নগদ অর্থ বিতরণ করেন – সেলিম আহমদ সুনামগঞ্জে দোয়ারাবাজারে মাদকসহ ব্যবসায়ী আটক নাটোরের বাগাতি পাড়ায় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড লক্ষ্মীপুরে ১০ টাকার জন্য মাকে খুন : নেশাগ্রস্ত ছেলের আমৃত্যু কারাদণ্ড নর্থ পয়েন্ট এডুকেশন স্কুল এন্ড কলেজের চতুর্থ প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীতে পিঠা উৎসব

চাইনিজ মোবাইল কোম্পানির বিরুদ্ধে কর ফাঁকির অভিযোগ

  • আপডেট সময় : বৃহস্পতিবার, ১৪ জুলাই, ২০২২
  • ১৪০ বার পঠিত

চাইনিজ মোবাইল কোম্পানির বিরুদ্ধে কর ফাঁকির অভিযোগ
ভারতে জনপ্রিয় চীনা মোবাইল নির্মাতা বিভিন্ন সংস্থার বিরুদ্ধে কোটি কোটি টাকা কর ফাঁকির অভিযোগ উঠেছে। চীনা এই মোবাইল কোম্পানিগুলোর মধ্যে রয়েছে অপ্পো, ভিভো, শাওমি, হুয়িউয়ে, ওয়ান প্লাসের মতো জনপ্রিয় মোবাইল কোম্পানির নাম।

ডিরেক্টোরেট অব রেভিনিউ ইন্টেলিজেন্স বা ডিআরআইয়ের দেয়া অভিযোগ অনুযায়ী, অপ্পোর বিরুদ্ধে কর ফাঁকি দেয়া টাকার পরিমাণ ভারতীয় মুদ্রায় দাঁড়ায় ৪,৪০০ কোটি টাকা।

মোবাইল তৈরির চাইনিজ এই ব্র্যান্ডটির আগে ভিভোর বিরুদ্ধেও একই অভিযোগ এনেছিল এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট বা ইডি। যার পরিপ্রেক্ষিতে সংশ্লিষ্ট সংস্থাটির দুই ডিরেক্টরই এখন ভারত ছেড়ে পালিয়েছে।

Somoy Tv News
বৃহস্পতিবার, ১৪ জুলাই, ২০২২

সম্পূর্ণ নিউজ সময়
আন্তর্জাতিক
২০ টা ৫৭ মিনিট, ১৪ জুলাই, ২০২২
চাইনিজ মোবাইল কোম্পানির বিরুদ্ধে কর ফাঁকির অভিযোগ
ভারতে জনপ্রিয় চীনা মোবাইল নির্মাতা বিভিন্ন সংস্থার বিরুদ্ধে কোটি কোটি টাকা কর ফাঁকির অভিযোগ উঠেছে। চীনা এই মোবাইল কোম্পানিগুলোর মধ্যে রয়েছে অপ্পো, ভিভো, শাওমি, হুয়িউয়ে, ওয়ান প্লাসের মতো জনপ্রিয় মোবাইল কোম্পানির নাম।
ছিবি: সংগৃহীত
ছিবি: সংগৃহীত
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

২ মিনিটে পড়ুন

ডিরেক্টোরেট অব রেভিনিউ ইন্টেলিজেন্স বা ডিআরআইয়ের দেয়া অভিযোগ অনুযায়ী, অপ্পোর বিরুদ্ধে কর ফাঁকি দেয়া টাকার পরিমাণ ভারতীয় মুদ্রায় দাঁড়ায় ৪,৪০০ কোটি টাকা।

মোবাইল তৈরির চাইনিজ এই ব্র্যান্ডটির আগে ভিভোর বিরুদ্ধেও একই অভিযোগ এনেছিল এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট বা ইডি। যার পরিপ্রেক্ষিতে সংশ্লিষ্ট সংস্থাটির দুই ডিরেক্টরই এখন ভারত ছেড়ে পালিয়েছে।

আরও পড়ুন: পি কে হালদারসহ ৬ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র

এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট বা ইডি ভিভোর আগেও চাইনিজ আরেকটি মোবাইল কোম্পানি শাওমির বিরুদ্ধেও প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করেছিল। এমআই ব্র্যান্ডের মোবাইল ফোন বিক্রেতা শাওমি কোম্পানির একটি ব্যাংক অ্যাকাউন্টের ৫ হাজার ৫৫১ কোটি ২৭ লাখ টাকা বাজেয়াপ্ত করে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা।

টাকা বাজেয়াপ্ত করার কারণ হিসেবে বলা হয়েছে, কর ফাঁকি দিয়ে ভারতে সংস্থার লেনদেনের একটা বিরাট অংশের টাকা চীনে পাচার হয়েছে। একই অভিযোগ ওঠেছে ভিভোর বিরুদ্ধেও। ভিভোর বিরুদ্ধে চীনে পাচার হওয়া অর্থের পরিমাণ প্রায় ৬২ হাজার ৪৭৬ কোটি টাকা।

Somoy Tv News
বৃহস্পতিবার, ১৪ জুলাই, ২০২২

সম্পূর্ণ নিউজ সময়
আন্তর্জাতিক
২০ টা ৫৭ মিনিট, ১৪ জুলাই, ২০২২
চাইনিজ মোবাইল কোম্পানির বিরুদ্ধে কর ফাঁকির অভিযোগ
ভারতে জনপ্রিয় চীনা মোবাইল নির্মাতা বিভিন্ন সংস্থার বিরুদ্ধে কোটি কোটি টাকা কর ফাঁকির অভিযোগ উঠেছে। চীনা এই মোবাইল কোম্পানিগুলোর মধ্যে রয়েছে অপ্পো, ভিভো, শাওমি, হুয়িউয়ে, ওয়ান প্লাসের মতো জনপ্রিয় মোবাইল কোম্পানির নাম।
ছিবি: সংগৃহীত
ছিবি: সংগৃহীত
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

২ মিনিটে পড়ুন

ডিরেক্টোরেট অব রেভিনিউ ইন্টেলিজেন্স বা ডিআরআইয়ের দেয়া অভিযোগ অনুযায়ী, অপ্পোর বিরুদ্ধে কর ফাঁকি দেয়া টাকার পরিমাণ ভারতীয় মুদ্রায় দাঁড়ায় ৪,৪০০ কোটি টাকা।

মোবাইল তৈরির চাইনিজ এই ব্র্যান্ডটির আগে ভিভোর বিরুদ্ধেও একই অভিযোগ এনেছিল এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট বা ইডি। যার পরিপ্রেক্ষিতে সংশ্লিষ্ট সংস্থাটির দুই ডিরেক্টরই এখন ভারত ছেড়ে পালিয়েছে।

আরও পড়ুন: পি কে হালদারসহ ৬ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র

এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট বা ইডি ভিভোর আগেও চাইনিজ আরেকটি মোবাইল কোম্পানি শাওমির বিরুদ্ধেও প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করেছিল। এমআই ব্র্যান্ডের মোবাইল ফোন বিক্রেতা শাওমি কোম্পানির একটি ব্যাংক অ্যাকাউন্টের ৫ হাজার ৫৫১ কোটি ২৭ লাখ টাকা বাজেয়াপ্ত করে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা।

টাকা বাজেয়াপ্ত করার কারণ হিসেবে বলা হয়েছে, কর ফাঁকি দিয়ে ভারতে সংস্থার লেনদেনের একটা বিরাট অংশের টাকা চীনে পাচার হয়েছে। একই অভিযোগ ওঠেছে ভিভোর বিরুদ্ধেও। ভিভোর বিরুদ্ধে চীনে পাচার হওয়া অর্থের পরিমাণ প্রায় ৬২ হাজার ৪৭৬ কোটি টাকা।

ডিরেক্টোরেট অফ রেভিনিউ ইন্টেলিজেন্সের বিবৃতি অনুযায়ী, মোবাইল টেলিকমিউনিকেসন্স কর্পোরেশনস লিমিটেডের অধীনস্ত সংস্থা ওপ্পোর বিরুদ্ধে এই অর্থের পরিমাণ প্রায় ৪ হাজার ৩৮৯ কোটি টাকা।

শুধু তাই নয়, পণ্য আমদানি সংক্রান্ত তথ্য গোপন করারও অভিযোগও উঠেছে সংস্থাগুলোর বিরুদ্ধে। তদন্তে নেমে ইডি সংশ্লিষ্ট মোবাইল কোম্পানির ইন্ডিয়ার যাবতীয় অ্যাকাউন্টের লেনদেন বন্ধ করে দেয়।

এদিকে অ্যাকাউন্টের লেনদেন স্বাভাবিক করতে ভিভোকে আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে ব্যাংক গ্যারান্টি বাবদ ৯৫০ কোটি টাকা জমা দিতে হবে বলে জানিয়ে দিল দিল্লি হাই কোর্ট।

উল্লেখ্য, হুয়িউয়ে, ওয়ান প্লাসের মতো মোবাইল কোম্পানিগুলোও লাল কালির আওতাভুক্ত রয়েছে। তাই ভারতীয় সরকার চীনা কোম্পানিগুলোর ওপর নজর রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। ভারতীয় বাজারে চীনা কোম্পানিগুলোর প্রবেশাধিকার সীমিত করারও চিন্তা ভাবনা করছে ভারতীয় সরকার।

সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া, সংবাদ প্রতিদিন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© নাগরিক এক্সপ্রেস । সর্বসত্ব সংরক্ষিত। নাগরিক এক্সপ্রেস এর প্রকাশিত প্রচলিত কোনো সংবাদ তথ্য ছবি আলোকচিত্র রেখা চিত্র ভিডিও চিত্র অডিও কনটেস্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামত এর জন্য কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ণ লেখক এর
Theme Customized By Shakil IT Park