1. admin@nagorikexpress.com : admin :
সোমবার, ০৪ মার্চ ২০২৪, ১০:০৩ অপরাহ্ন
নোটিশ :
পরিচালনা পরিষদ: নাগরিক এক্সপ্রেস এর আইডি কার্ড এর মেয়াদ সম্পূর্ণ কোন সাংবাদিক নেই . সকলের আইডি কার্ডের মেয়াদ শেষ। দ্রুত আইডি কার্ড সংগ্রহ করুন জনপ্রিয় পত্রিকা নাগরিক এক্সপ্রেস এর পক্ষ থেকে সবাইকে পরিচালনা পরিষদের পক্ষ থেকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন । বর্তমানে সারা বাংলাদেশে আইডি কার্ড ধারি আমাদের কোন সংবাদ কর্মী নেই যারা আছেন তাদের আইডি কার্ডের মেয়াদ শেষ হয়ে গেছে তাই উক্ত সাংবাদিকগণ আমাদের প্রতিষ্ঠানে কর্মরত আছেন বলে বিবেচিত হবে না। যদি কারো আইডি কার্ডের প্রয়োজন হয় তাহলে খুব শীঘ্রই আমাদের সাথে যোগাযোগ করবেন। আপনি কি সাংবাদিক হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করতে চান? আপনি কি সমাজের সমস্ত অন্যায় অপরাধ দুর্নীতির বিরুদ্ধে লিখতে চান? তাহলে আজই আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন. নিরপেক্ষ সংবাদ এর সন্ধানে। আপনার এলাকায় ঘটে যাওয়া যেকোনো অনিয়ম দুর্নীতি আমাদের কাছে ইমেইলের মাধ্যমে পাঠাতে পারেন অথবা নিচে দেওয়া আমাদের নাম্বারে যোগাযোগ করতে পারেন সারাদেশে সাংবাদিক নিয়োগ চলছে সাংবাদিক হিসেবে নিজেকে গড়ে তুলতে আজি আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন.
শিরোনাম :
বিয়ে বাড়িতে মদ্যপান, অসুস্থ হয়ে মামা-ভাগনের মৃত্যু গাজীপুরে পুলিশের ওপর ডাকাত দলের হামলা ভাঙ্গায় এনজিওর কিস্তি টাকা উত্তোলনকে কেন্দ্র করে ৬ পুলিশ সহ এনজিও কর্মীদের ওপর হামলা, আহত-১২ নকশি কাঁথা ও তারুন্য পরিবার মাদারীপুরের আয়োজনে বিশিষ্ট সমাজসেবক ও দানশীল ব্যক্তিত্ব চাঁদপুরে মোবাইল চুরির মামলায় ‘ভুয়া এসপি’ কারাগারে টেকনাফের শাহপরীর দ্বীপে ৭০ হাজর পিস ইয়াবা জব্দ করেছে কোস্ট গার্ড ফেনী ভিক্টোরিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ে অভিভাবক সমাবেশ অনুষ্ঠিত মতলবে অটোবাইকের ধাক্কায় শিশু নিহত আহতদের চিকিৎসাভার ও নিহতদের ২৫ হাজার করে টাকা দেবে সরকার আমরা যেন ঘুড়ির মত স্বপ্নগুলো লালন করতে পরি,আর বই আমাদের পরিবর্তন করে

মাটি ভরাটের নামে প্রবাসীর প্রতারণার অভিযোগ: মজুরীর আশায় শ্রমিকরা ঘুরছে দ্বারে দ্বারে

  • আপডেট সময় : শনিবার, ২৭ মে, ২০২৩
  • ৭৯ বার পঠিত

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি
সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরের কবিরপুর এলাকার এক প্রবাসী নারীর বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগ উঠেছে। উপজেলার কিছু শ্রমিকরা ওই নারীর বসতঘর নির্মাণের জায়গায় মাটি ভরাটের কাজ করে আসছিলেন। কিন্তু কাজের পর চুক্তি অনুযায়ি টাকা না পাওয়ায় আইনি সহযোগিতা চেয়ে আদালতের দারস্ত হয়ে বিচার চাইছেন এসব শ্রমিক। অভিযোগসূত্রে জানা গেছে- ২০২২ সালের ১৬ ডিসেম্বর জমিতে মাটি ভরাটের জন্য লিখিত চুক্তি হয়। চুক্তি অনুযায়ি কবিরপুর এলাকার প্রবাসী নারী রুপবাহার বেগম ও তার আত্মীয় আক্তার হোসেনের নির্দেশনা অনুযায়ি রুপবাহারের ৪ কেদার জমিতে ৩লাখ ঘনফুট মাটি ভরাটের কাজ করে একই উপজেলার ঘোষগাও এলাকার ঠিকাদার জাহেদ আলী ও তার শ্রমিকরা। এই জমিতে প্রবাসী নারীর ইচ্ছে অনুযায়ি একটি পুকুরও খনন করাহয় বলে জানান শ্রমিকরা। ওই জায়গায় ছোট একটি ছাপটা ঘর বেধে শ্রমিকরা দিন রাত মাটি কাটার কাজ করেন। কিন্তু কাজের চুক্তি ভঙ্গ করে ওই বছরেরই ৩০ ডিসেম্বর ঠিকাদার ও শ্রমিকদেরকে ২লক্ষ ৩০ হাজার টাকা পরিশোধ করে বাকি টাকা না দিয়ে ওই প্রবাসী নারী ও তার আত্মীয় আক্তার লাপাত্তা হওয়ার অভিযোগ উঠেছে শ্রমিকদের পক্ষ থেকে। ঠিকাদার বলছেন আরও ৯লক্ষ ৭০ হাজার টাকার মাটির টাকা তারা পাননি। শ্রমিকরা বলছেন উল্টো নানা ধরণের হুমকি ও ক্ষমতা প্রদর্শন করা হচ্ছে এই প্রবাসীর পরিবারের পক্ষথেকে। ঠিকাদার জাহেদ বলেন“ আমরা প্রতারণার শিকার হয়েছি, এখন টাকার জন্য মানুষের দ্বারে দ্বারে ঘুরছি, প্রবাসী নারী রুপবাহারের জায়গায় মাটি ভরাটের চুক্তির পর আমরা কাজ করেছি অনেক কষ্ট করে, আমাদের অনেক শ্রমিক কাজ করেছে, তাদেরকে দৈনিক মজুরি দিয়েছিলাম অনেক জায়গা থেকে টাকা ধার করে এনে। তবে পুরো টাকা কাউকেই দিতে পারিনি, এখনো শ্রমিকরা আমার কাছে টাকা পায়। আমাদেরকে টাকা না দিয়ে এখন হুমকি দেয়া হচ্ছে। আক্তারকে পাওয়া যাচ্ছেনা। প্রবাসী নারীর বাসায় গেলে আমাদেরকে উল্টো গালিগালাজ করা হচ্ছে। আমরা এখন অসহায়। বিচার পাচ্ছিনা কোথাও। তাই আদালতের কাছে বিচার চেয়েছি আমরা। সরেজমিনে জগন্নাথপুর উপজেলায় গিয়ে দেখা যায়, প্রবাসী নারী রুপ বাহারের আত্মীয় জয়নগর এলাকার মৃত আব্দুর রকিবের ছেলে আক্তার হোসেন এখনও লাপাত্তা। তবে প্রবাসী ওই নারী রুপ বাহারের সঙ্গে মুঠোফোনে কথা বলায় তার সঙ্গে দেখা করার ও কথা বলার সুযোগ হওয়াতে প্রতিবেদকের কাছে বিষয়টির ভিন্নমত প্রকাশ করেন তিনি। প্রবাসী নারী রুপবাহার বলেন“ আমার সঙ্গেই এরা প্রতারণা করেছে, আমার কোন দোষ নেই, তারা আক্তারকে ধরুক, আমি যে টাকায় চুক্তি করেছি আক্তারের মাধ্যমে সেখানে আমি জানতে পারি আমাকে ঠকানো হচ্ছে, পাশের জমিতে কম টাকায় মাটি কাটার কথা জানতে পেরে আমি হতভম্ভ হই, আক্তারকে টাকা দিয়েছিলাম, সে নয় ছয় করেছে, এখন পলাতক সে, তাকে ধরুক ঠিকাদার ও শ্রমিকরা, আমাকে এখানে দোষারোপ করা যাবেনা, এরা ইচ্ছে করে আমার সঙ্গে ঝামেলা করেছে।
এ ব্যপারে জগন্নাথপুর থানার অফিসার্স ইনচার্জ মিজানুর রহমান বলেন, অভিযোগ পেয়েছি। বিষয়টি খতিয়ে দেখে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© নাগরিক এক্সপ্রেস । সর্বসত্ব সংরক্ষিত। নাগরিক এক্সপ্রেস এর প্রকাশিত প্রচলিত কোনো সংবাদ তথ্য ছবি আলোকচিত্র রেখা চিত্র ভিডিও চিত্র অডিও কনটেস্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামত এর জন্য কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ণ লেখক এর
Theme Customized By Shakil IT Park